1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

তেলপাম্পের কর্মচারী থেকে তেল ব্যবসায়ী!

পরিবারের ১৩তম সন্তান হার্লড হ্যাম। হার্লড হ্যাম-এর জন্ম ১১ ডিসেম্বর ১৯৪৫ সালে। তিনি জন্মগ্রহণ করেছিলেন আমেরিকার ওকলাহোমাতে। তার বাবা ছিলেন হতদরিদ্র একজন কৃষক, যিনি বর্গাচাষি ছিলেন।

তার কাছেই তিনি লালিত পালিত হন। তার বাবা তাকে ছোট বেলাতে কাজে লাগিয়ে দিয়েছিলেন। কার্পাস সংগ্রহের কাজ করতেন তিনি। এটা ছাড়াও আরও অনেক কাজ করেছেন তিনি, গাড়ি মেরামতের কাজ করেছেন, করেছেন তেলের পাম্পে তেল দেয়ার কাজও।

১৯৬৭ সালে তিনি তেল কোম্পানিতে প্রথম কাজের জন্য যান এবং তার যখন ২১ বছর বয়স তখন তিনি নিজের কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করেন। তবে এখন তিনি একজন সফল ব্যবসায়ী।

কোনো কাজকেই কখনো ছোট করে দেখেননি হার্লড হ্যাম; বরং যে কোনো কাজই সম্মানের। কাজকে ছোট করে দেখলে কাজ ও মানুষকে ছোট করে দেখে।

সততার সঙ্গে কোনো কাজ করলে সফলতা আসবেই এই নীতিতেই বিশ্বাসী হার্লড হ্যাম। হার্লড হ্যাম ১৯৮৭ সালে তার প্রথম স্ত্রীকে ডিভোর্স দেন এবং ১৯৮৮ সালে সুই আন কে বিয়ে করেন।

শেষ পর্যন্ত তাও টেকেনি। তার বিয়ে নিয়েও আছে আলোচিত কাহিনি। পৃথিবীর ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি টাকা দিয়ে বিবাহ বিচ্ছেদ করেন। আদালতের নির্দেশে তিনি তার বিবাহ বিচ্ছেদের ফলে ১০০ কোটি ডলার দিতে বাধ্য হন সু আন কে।

এরপর তিনি জড়িয়েছেন রাজনীতিতেও। তিনি এখন কন্টিনেন্টাল রিসোর্স, ব্যাকেন অয়েল ফিল্ডসহ আরও কয়েকটি কোম্পানির মালিক। জানুয়ারি ২০১৮-এর হিসাবমতে তার মোট সম্পদের পরিমাণ ১৮.৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

More News Of This Category